সুশান্তের জন্য অভিনয় ছাড়তে চেয়েছিলেন অঙ্কিতা

প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ও অঙ্কিতা লোখান্ডের প্রেমের গল্প প্রায় সবারই জানা। ‘পবিত্র রিশতা’ ধারাবাহিকের সেটে তাদের প্রেমের সম্পর্ক শুরু। দীর্ঘ ছয় বছর একসঙ্গে ছিলেন। বিয়ের সিদ্ধান্তও নিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তী সময়ে তাদের ব্রেকআপ হয়।

এক সাক্ষাৎকারে সুশান্ত ও অঙ্কিতার বন্ধু প্রযোজক সন্দীপ সিং জানান, সুশান্তের জন্য অভিনয় ক্যারিয়ারও ছাড়তে রাজি ছিলেন অঙ্কিতা।

সুশান্তের আত্মহত্যা প্রসঙ্গে সন্দীপ সিং বলেন, ‘মেসেজ কলে সবসময় সুশান্ত ও আমার যোগাযোগ হতো। মনে হয় না কেউ যখন এরকম সিদ্ধান্ত নেয় তখন তার মনের কথা বোঝা যায়। এছাড়া তার বাড়িতে অনেক লোকজন থাকত।’

এই অভিনেতা ও অঙ্কিতার প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে তিনি বলেন, ‘অঙ্কিতা শুধু তার প্রেমিকা ছিল না। ইন্ডাস্ট্রিতে আমার ২০ বছরের পথচলায় তার মতো মেয়ে দেখিনি। সে সুশান্তের যেভাবে যত্ন নিয়েছে অন্য কেউ নেয়নি। সে-ই একমাত্র তাকে বাঁচাতে পারত। সে তার জন্য সবকিছু সঠিকভাবে করত। সুশান্তের পছন্দ মতো সাজত, খাবার যেটি রান্না করত সেটিও তার পছন্দ মতো। এমনকি ঘরের ভেতরের সবকিছু সাজানো থাকত সুশান্তের পছন্দ অনুযায়ী। সুশান্ত যে বই পড়ত সেগুলোই ঘরে থাকত। সুতরাং সবকিছু তার খুশির জন্য করা হতো।’

তিনি আরো বলেন, ‘অঙ্কিতা খুবই আবেগপ্রবণ। ক্যারিয়ারের চূড়ায় থাকা অবস্থায় সুশান্তের জন্য তা ছাড়তে চেয়েছিল। টেলিভিশনে সে খুবই জনপ্রিয় এবং সিনেমার প্রস্তাব পাচ্ছিল। এমনকি তাদের ব্রেকআপের পর সে চাইতো সুশান্তের সিনেমা সফল হোক ও সে সুখে থাক। যেদিন সুশান্ত এই দুঃখজনক সিদ্ধান্ত নিল, অঙ্কিতাকে নিয়ে আমার খুবই চিন্তা হচ্ছিল। বাড়ি থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত যেতে যেতে আমি তাকে অনেকবার কল করেছিলাম কিন্তু অঙ্কিতা ধরেনি। তার মনের অবস্থা বুঝতে পারছিলাম। ময়নাতদন্তের প্রক্রিয়া শেষে তার বাড়িতে গিয়েছিলাম। আমি তাকে ১০ বছর ধরে চিনি। সে আমাকে এমনভাবে জড়িয়ে ধরে, আগে কখনো এমন করেনি। সম্প্রতি তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সে এখনো শোকের মধ্যেই আছে। সত্যি বলতে, তারা একে অন্যের জন্য ছিল।’


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *