৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

আন্তর্জাতিক কার্ডের মাধ্যমে বিদেশে সেবা ব্যয় পাঠানোর সুযোগ

newsup
প্রকাশিত জুন ১, ২০২১
আন্তর্জাতিক কার্ডের মাধ্যমে বিদেশে সেবা ব্যয় পাঠানোর সুযোগ

নিউজ ডেস্কঃ  আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেই বিভিন্ন সেবা ব্যয় বিদেশে পাঠাতে পারবেন গ্রাহকরা। এ জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কোনো অনুমোদনের প্রয়োজন হবে না। বৈদেশিক মুদ্রা নীতিমালা শিথিল করে এ বিষয়ে গতকাল ব্যাংকগুলোর জন্য নতুন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে। এ নির্দেশনা গতকালই ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্যয়, সদস্য ফি, ভর্তি ফি, শিক্ষা বা চিকিৎসা ব্যয়, ভিসা ফি, প্রশিক্ষণ ফি প্রভৃতি। আগে ব্যাংকগুলো তাদের নস্টো অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে পাঠানো হতো। নস্টো অ্যাকাউন্ট হলো বিদেশে ব্যাংকগুলোর সাথে দেশীয় ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট। এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ব্যাংকগুলো গ্রাহকের বিভিন্ন দায় বৈদেশিক মুদ্রায় পরিশোধ করে থাকে। কোনো গ্রাহক বিদেশে অর্থ পাঠাতে হলে অথরাইজ ডিলার বা এডি শাখাগুলোর বৈদেশিক মুদ্রার উৎস, কী উদ্দেশ্যে বৈদেশিক মুদ্রা পাঠানো হচ্ছে প্রভৃতি তথ্য ব্যাংকগুলোর কাছে গ্রাহককে দিতে হয়। এতে গ্রাহকের যেমন জবাবদিহিতা থাকে, তেমনি বৈদেশিক মুদ্রা পাচার হওয়ার আশঙ্কা থেকে মুক্ত থাকা যায়। তবে ব্যাংকের মাধ্যমে বিভিন্ন সেবা ব্যয় বিদেশে পাঠাতে হলে গ্রাহককে ব্যাংকের ফি পরিশোধ করতে হয়। আবার অনেক সময় ব্যাংক গ্রাহকের তথ্য যাচাই-বাছাই করতে সময় ক্ষেপণ হয়।

কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে অর্থ পাঠাতে গ্রাহকের এক দিকে যেমন খরচ কমবে, অন্য দিকে সময় ক্ষেপণ হবে না। অর্থাৎ যেকোনো মুহূর্তে গ্রাহক বিদেশে সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষে অর্থ পাঠাতে পারবেন। তবে এ ক্ষেত্রে গ্রাহকের কোনো জবাবদিহিতা না থাকায় অর্থ পাচারেরও আশঙ্কা থাকবে।

এ বিষয়ে গতকাল ব্যাংকগুলোর জন্য জারি করা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বিদ্যমান ব্যবস্থায় অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক সুইফট মেসেজের মাধ্যমে বৈদেশিক লেনদেন সম্পাদন করে থাকে। অন্য দিকে এক্সচেঞ্জ হাউজের মাধ্যমে প্রবাসী আয় দেশে আসে। নতুন পদ্ধতির মাধ্যমে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক নিজের নামে আন্তর্জাতিক রেমিট্যান্স কার্ড ইস্যু করতে পারবে। এ কার্ডের মাধ্যমে কয়েকটি খাতে ইন্টারনেটের মাধ্যমে রেমিট্যান্স বিদেশে পাঠানো যাবে। নতুন পদ্ধতিতে ঘোষিত রেমিট্যান্স প্রেরণ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা জানান, বৈদেশিক লেনদেন ব্যবস্থা প্রতিনিয়ত সময়োপযোগী করা হচ্ছে। নতুন সার্কুলারের আওতায় বিদেশী বেনিফিশিয়ারি চাহিদা মোতাবেক অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক তাদের গ্রাহকের পক্ষে কার্ডের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট লেনদেনগুলো নিষ্পত্তি করতে পারবে।

তবে ব্যাংকাররা জানিয়েছেন, বিদেশে বিভিন্ন চার্জ বা সেবা ব্যয় পাঠাতে আগে ব্যাংকগুলোর নস্টো অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা হতো। এর মাধ্যমে গ্রাহকের জবাবদিহিতা যেমন থাকত, তেমনি প্রতিটি ফি পাঠাতে ব্যাংক সার্ভিস চার্জও পেত। এখন ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে সার্ভিস চার্জ পাঠানোর অনুমোদন দেয়ায় ব্যাংকের আয় কমে যাবে, পাশাপাশি কমে যাবে গ্রাহকের জবাবদিহতার আওতা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, প্রত্যেকের বিদেশে ভ্রমণ ও সার্ভিস চার্জ পাঠাতে বিদেশী মুদ্রা ব্যয়ের বার্ষিক সীমা দেয়া থাকে। সার্ক দেশভুক্ত দেশগুলোর জন্য একধরনের সীমা থাকে। আর সার্কের বাইরের জন্য আরো বেশি সীমা রয়েছে। আগে যেখানে এ ব্যয় নস্টো অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে করা হতো, এখন সেটি আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে করা হবে। প্রতিটি লেনদেনের পর তার রেকর্ড জমা থাকবে।

এ ক্ষেত্রে গ্রাহক বিদেশী সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্টে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে তার সেবা ব্যয় পাঠিয়ে দেবেন। লেনদেনের নির্ধারিত সীমা অতিক্রম হওয়ার আগেই তাকে সতর্ক করা হবে। সুতরাং বছর শেষে আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে অতিরিক্ত ব্যয় করার সুযোগ থাকবে না সংশ্লিষ্ট গ্রাহকের।


সংবাদটি পড়ে ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

https://www.booked.net

+22
°
C
+22°
+19°
London
Monday, 29

 

See 7-Day Forecast