কয়েকটি দেশের পর এবার রাশিয়ার দেওয়া এই প্রস্তাবও গ্রহণ করা হচ্ছে না।

সম্প্রতি করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় কঠোর অবস্থা জারি করে উত্তর কোরিয়ার সরকার। বন্ধ করে দেওয়া হয় সীমান্ত।

চীনের সঙ্গে দেশটির বাণিজ্যের ক্ষেত্রে এরই প্রভাব পড়েছে; যাতে সংকট তৈরি হয়েছে। উত্তর কোরিয়া খাদ্য-জ্বালানিসহ অনেক কিছুর জন্যই চীনের ওপর নির্ভরশীল।

স্থানীয় সময় বুধবার রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সার্গেই ল্যাভরভ বলেন, এরই মধ্যে কয়েকবার উত্তর কোরিয়াকে করোনার টিকা পাঠানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।টিকা প্রয়োজন হলে তাদের জানাতেও বলেছেন তিনি।

উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে; তাদের দেশে কোনও করোনার রোগী নেই। অবশ্য বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে বারবারই সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।