২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

রঙিলা চোখে অপরূপা

newsup
প্রকাশিত জুন ৭, ২০২১
রঙিলা চোখে অপরূপা

নিউজ ডেস্কঃ চোখে রূপের ছায়া পড়ে। সামান্য কাজলের একটি স্ট্রোক অনেক মেয়ের চোখকে মোহময় করে তুলতে যথেষ্ট। আর আইশ্যাডো ব্যবহারে মেয়েদের চোখের পাতা হয় সুন্দর, মোহনীয় ও লাবণ্যময়ী। তাই রূপচর্চার জন্য আইশ্যাডো খুব প্রয়োজনীয়।

চোখের মেকআপ যদি ভালোভাবে করা যায় তাহলে যে কোনো নারীকে অপরূপা লাগবে। কারণ, মেকআপ সৌন্দর্যকে প্রকাশ করার অতুলনীয় এক শিল্প। আর চোখের সাজে এই শিল্প ঠিকঠাক করা গেলে আপনার সৌন্দর্য অন্তত দ্বিগুন হয়ে যাবে, এতে বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই।

চোখের সাজ তখনই সৌন্দর্য ও সম্পূর্ণতা পেয়ে থাকে যখন চোখে আইশ্যাডো ব্যবহার করা হয়। ভেজা ও শুকনো দুই ধরনের আইশ্যাডো হয়ে থাকে। ভেজাটি ব্যবহার করলে চোখ সাধারণত সুন্দর দেখা যায়। অন্যদিকে, শুকনোটি ব্যবহার করলে নড়াচড়ার ফলে জরিতে ভরে যেতে পারে। ভেজাটার দাম তুলনামূলক বেশি, এটি বিভিন্ন রঙ ও দামের হয়।

যে কোনো পার্টি বা উৎসবে ভালো মতো সাজগোজ করতে হলে চোখের সাজ কিন্তু হতে হবে পারফেক্ট। এ নিয়ে অবশ্য দুশ্চিন্তার অন্ত থাকে না মেয়েদের। কারণ, কোন শেড কোন অনুষ্ঠানে বা কোন সাজের সাথে মানানসই হবে এ নিয়ে কমবেশি সবাই গুলিয়ে ফেলেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক পরিচিত ৫টি শেডের সম্পর্কে, যেগুলো আপনার কালেকশনে থাকলে যে কোনো সাজ বা যে কোনো ড্রেসের সঙ্গে আপনাকে দারুণ মানাবে।

১.প্রথমেই বলতে হয় ব্রাউন কালারের কথা। কারণ, এটি সবচেয়ে সেফ কালার। মানে কোনো চিন্তাভাবনা না করে যে কোনো পোশাকের সঙ্গেই ব্রাউন কালারে আইশ্যাডো দিয়ে আপনার চোখ সাজিয়ে নিতে পারেন। এটা সবচেয়ে কমন কালার এবং যে কোনো স্কিনের সঙ্গে ভালো মানাবে।

২.রেগুলার মেকআপের জন্য ব্রোঞ্জ আইশ্যাডো বেশ ভালো। দিনে হোক বা রাতে, যে কোনো কালারের পোশাকের সঙ্গে ব্রোঞ্জের হালকা স্টে আপনার লুককে পারফেকশন এনে দিতে পারে। অফিস বা ইউনিভার্সিটি, যে কোনো সাজের সঙ্গে ব্রোঞ্জ বেশ ভালো মানাবে।

৩.শাড়ি বা সালোয়ার এমনকি ওয়েস্টার্ন ড্রেসের সাথে গোল্ড কালারের আইশ্যাডো ব্যবহার করতে পারেন। কারণ, গোল্ড এমন একটি কালার, যা কোনো ত্বক ও রঙের পোশাকের সঙ্গে ভালো মানিয়ে যায়। অন্যদিকে, ব্রাইডাল মেকআপের জন্য কিন্তু এই কালারের আইশ্যাডো বেস্ট। তবে গোল্ড আইশ্যাডোর আবার কিছু আলাদা শেড আছে। যেমন- মিডিয়াম গোল্ড, লাইট গোল্ড, ইয়েলোইশ গোল্ড ইত্যাদি। কোনটা আপনার ত্বকের সঙ্গে ম্যাচ করবে সেটা নির্বাচন করতে হবে আপনাকে।

৪.সাজগোজের ক্ষেত্রে যারা একটু সাহসী ও ট্রেন্ডি তাদের জন্য গ্রিন পারফেক্ট। বিশেষ করে ডার্ক গ্রিন এবং এমারেল্ড গ্রিন যে কোনো সাজকে চেঞ্জ করে দিতে পারে। গ্রিন ও ব্লু কম্বিনেশন বা গ্রিন ব্রাউন কম্বিনেশন আপনি ট্রাই করে দেখতে পারেন। দিনের বেলায় যে কোনো অনুষ্ঠানে এই কম্বিনেশনে আপনাকে দুর্দান্ত লাগবে।

৫.নীল রঙের ছোঁয়া চোখের রূপকে করে তোলে আরো সতেজ ও প্রাণবন্ত। ব্লু আইশ্যাডো আপনার সাজে আলাদা মাত্রা এনে দেয়। এটাকে লেটেস্ট ট্রেন্ডও বলা যেতে পারে। পার্টিগুলোতে ব্লু আইশ্যাডো সলিড কালারের পোশাকের সাথে দারুণ মানাবে। কোয়ার্টজ ব্লু বা লাইট ব্লু দুইটাই চোখকে করে মোহনীয় ও কামনীয়।

এসব বাদেও অর্ধশত রঙেরও বেশি আইশ্যাডো পাওয়া যায়। আপনার চোখকে কোন রঙে মোহনীয় করবেন সেটা আপনার পছন্দ। ব্র্যান্ডের আইশ্যাডোগুলো ব্যবহার করাই ভালো। তবে, সাধারণ আইশ্যাডোর দাম তুলনামূলক কম। ত্বক বুঝে আইশ্যাডো কিনুন। প্রয়োজনে রূপ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


সংবাদটি পড়ে ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

https://www.booked.net

+22
°
C
+22°
+19°
London
Monday, 29

 

See 7-Day Forecast