২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

যুক্তরাজ্যের পর এবার ইইউ ছাড়ছে পোল্যান্ড

newsup
প্রকাশিত অক্টোবর ১২, ২০২১
যুক্তরাজ্যের পর এবার ইইউ ছাড়ছে পোল্যান্ড

নিউজ ডেস্কঃ  ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য হতে এবং থাকতে মৌলিক কিছু নীতি সদস্যদের মানতেই হয়। এর মধ্যে অন্যতম হলো– কিছু কিছু বিষয়ে ইইউ আইনের বিধান এবং ইউরোপীয় আদালতের রায়ই হবে চূড়ান্ত। সদস্য দেশগুলোর সরকার ও আদালতকে তা মেনে নিতে হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের এই মৌলিক নীতির প্রশ্নে জোটটির সঙ্গে পোল্যান্ডের বিরোধ চরমে পৌঁছেছে। দেশটির সাংবিধানিক আদালত বৃহস্পতিবার এক রায়ে বলেছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের মূল চুক্তির কিছু ধারার সঙ্গে পোলিশ আইনের কোনও সামঞ্জস্য নেই।

এই রায়ের মাধ্যমে পোল্যান্ডের সর্বোচ্চ আদালত পক্ষান্তরে ইউরোপীয় আইন এবং ইউরোপীয় আদালতের শ্রেষ্ঠত্বের বিধান প্রত্যাখ্যান করলো।

মানবাধিকার বা সমকামী অধিকারের মতো কিছু ইস্যুতে পোল্যান্ডের সরকারের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরেই ব্রাসেলসের টানাপড়েন চলছিল। সেই বিরোধে এখন নতুন মাত্রা যোগ হলো।

যেসব মৌলিক নীতি ইউরোপীয় জোটের মূল ভিত্তি হিসেবে বিবেচিত হয়, তাকে পোলিশ প্রধানমন্ত্রী মোরাভিয়েস্কির সরকার যেভাবে চ্যালেঞ্জ করছে তা নজিরবিহীন।

এর ফলে উদ্বেগ বাড়ছে যে যুক্তরাজ্যের মতো পোল্যান্ডও কি ইউরোপীয় জোট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পথ ধরছে? ইতোমধ্যেই দেশটিতে ব্রেক্সিটের মতো ‘পোলেক্সিট’ শব্দটি উচ্চারিত হতে শুরু করেছে।

ইউরোপীয় জোটের দেশগুলোতে পোল্যান্ডের উদ্দেশ্য নিয়ে সন্দেহ শুরু হয়েছে। পোলিশ সাংবিধানিক আদালতের রায়ের পর ফ্রান্স বলছে, ইইউ জোট থেকে পোল্যান্ডের প্রস্থান এখন ‘সত্যিকারের একটি ঝুঁকি।’

শুক্রবার ফরাসি এবং জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক যৌথ বিবৃতিতে পোলিশ সরকারের সমালোচনা করেন। তারা বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যপদের প্রধান একটি শর্ত হচ্ছে, ‘অভিন্ন কিছু মূল্যবোধ ও রীতিনীতিকে শর্তহীনভাবে এবং অক্ষরে অক্ষরে মানতে হবে। এটি শুধু নৈতিক প্রতিশ্রুতি নয়, এটি একটি আইনি অঙ্গীকারও বটে।’

ইউরোপীয় কমিশন হুঁশিয়ার করেছে পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে তারা তাদের ক্ষমতা প্রয়োগ করবে। কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভর ডেন লেইন বলেছেন, ‘ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যপদ পোলিশ নাগরিকদের যেসব সুযোগ সুবিধা দিয়েছে তা রক্ষা করা আমাদের প্রধান একটি অগ্রাধিকার।’

গবেষণা প্রতিষ্ঠান বিংহাম সেন্টার ফর দি রুল অব ল-এর একজন গবেষক প্যাট্রিক ওয়াকোভিয়েচ। বিবিসি-কে তিনি বলেন, ‘সত্যিকার অর্থে, পোলিশ সাংবিধানিক আদালতের রায় আইনের জগতে একটি ‘পোলেক্সিট’-এর সূচনা। কারণ পোলিশ ও ইউরোপীয় আদালতের মধ্যে সহযোগিতা এর ফলে আরও জটিল হয়ে পড়বে। বিশেষ করে কোনও রায় দিয়ে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠা করা কঠিন হবে।

ওয়াকোভিয়েচ মনে করেন, পোলিশ প্রধানমন্ত্রী ইউরোপীয় আদালতের রায় আটকাতে এই চ্যালেঞ্জ তৈরি করেছেন। গত প্রায় ছয় বছর ধরে পোল্যান্ডের ক্ষমতাসীন দল বিচার বিভাগে যে ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে ইউরোপীয় আদালত তা পছন্দ করেনি। দেশটির উচ্চ আদালতে সরকারের বিতর্কিত কিছু নিয়োগের কড়া সমালোচনা করেছে ইউরোপীয় আদালত।

ইউরোপীয় কমিশন বলছে, যেসব পরিবর্তন পোল্যান্ডে সম্প্রতি আনা হয়েছে তাতে দেশটির বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ হয়েছে এবং আদালতে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের সুযোগ তৈরি হয়েছে। পোল্যান্ডের ক্ষমতাসীন ল অ্যান্ড জাস্টিস পার্টির (পিআইএস) সংস্কার কর্মসূচির প্রথম টার্গেট ছিল সাংবিধানিক আদালত। ইউরোপীয় মানবাধিকার আদালতের মতে, পোলিশ এই সাংবিধানিক আদালতে এমন সব বিচারকদের এখন বসানো হয়েছে যারা হয় ক্ষমতাসীন দলের সমর্থক না হয় দলের প্রতি সহানুভূতিশীল। এমনকি একজন বিচারকের নিয়োগও ছিল অবৈধ।

প্রধানমন্ত্রী মোরাভিয়েস্কি এবং পিআইএস দলের ক্ষমতাধর চেয়ারম্যান এবং উপ প্রধানমন্ত্রী জারোস্ল কাজনিস্কি অবশ্য বলেছেন, পোল্যান্ডকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের করে আনার কোনও উদ্দেশ্যই তাদের নেই। তিনি বলেন, ইইউ সমর্থক ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়াতে বিরোধী দলগুলো এই ‘ফেক নিউজ’ ছড়াচ্ছে।

পোল্যান্ডে অবশ্য এমন মানুষের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে যারা মনে করেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের কারণে তাদের দেশের সার্বভৌমত্ব ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। পোলিশ সরকার অবশ্য স্বীকার করে যে, ইইউ-এর সদস্যপদের কারণে দেশটিতে বিলিয়ন বিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগ হয়েছে যা দেশকে আমূল বদলে দিয়েছে। তাছাড়া, ইউরোপের অভিন্ন বাজারকেও বিশাল সুযোগ হিসেবে বিবেচনা করে তারা।

এমন বাস্তবতায় সরকারের উদ্দেশ্য নিয়ে নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছে বিরোধীরা। ইউরোপীয় কাউন্সিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টুস্ক, যিনি পোল্যান্ডের প্রধান বিরোধী গোষ্ঠী সিভিক কোয়ালিশনের প্রধান, তিনি সাংবিধানিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ডাক দিয়েছেন। টুইটারে দেওয়া এক ভিডিও পোস্টে তিনি বলেন, ‘ইউরোপ থেকে পোল্যান্ডকে বের করে আনার যে পরিকল্পনা জারোস্ল কেজনিস্কি করছেন তা বাস্তবায়নের কাজ পুরোদমে শুরু হয়েছে। আমরা যদি এখন চুপ করে থাকি তাহলে কেউ তাকে ঠেকাতে পারবে না।’ সূত্র: বিবিসি।


সংবাদটি পড়ে ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
October 2021
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

https://www.booked.net

+22
°
C
+22°
+19°
London
Monday, 29

 

See 7-Day Forecast